বৃহস্পতিবার , ২৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আর্জেন্টিনা
  5. ইউক্রেন
  6. ইরান
  7. খেলাধুলা
  8. চীন
  9. জবস
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দুর্ঘটনা
  13. দেশজুড়ে
  14. ধর্ম
  15. প্রবাস

ত্যাগী নেতা কর্মীদের অবমূল্যায়ন : মূল্যায়িত হচ্ছে হাইব্রিড নেতাকর্মী

প্রতিবেদক
admin
ডিসেম্বর ২৮, ২০২৩ ১১:৪০ পূর্বাহ্ণ

মোহাম্মদ নাছিম, উখিয়া :

আগামী ৭ই জানুয়ারী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এ সময়ে ও তৃণমূল আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের ত্যাগী কর্মীরা মুখ গোমড়ে বসে আছেন।

অনেক নেতা কর্মীর দাবী, রাজনীতিতে দুর্দিনে যারা ত্যাগীর ভূমিকায় অবর্তীর্ণ হতেন। দল ক্ষমতায় থাকার পরেও তাদের অনেকের এখন চলছে দুর্দিন। সুযোগ সন্ধ্যানী, অনুপ্রবেশকারী, হাইব্রিড মার্কা নেতাদের দাপটে তারা এখন কোনঠাসায়। হারিয়ে যাচ্ছে উখিয়ার তৃণমূল আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের যোগ্য কর্মীরা।

ত্যাগীদের প্রতি সংশ্লিষ্ট এলাকার দলীয় নেতারা মুখ ফিরিয়ে রাখেন। তাদেরকে আর এখন কাছে ভিড়তে দেয় না। তাদের ঘিরে রাখেন নব্য-সুযোগ সন্ধ্যানী নেতারা। এতে দীর্ঘদিনের পরিক্ষিত নেতারা ত্যাগের বিনিময় পাচ্ছেন লাঞ্চনা বাঞ্চনা। অথচ নব্য আওয়ামী লীগারাই এখন লুটেপুটে খাচ্ছে।

অনুসন্ধ্যানে দেখা যায়, দু:সময়ে যারা আন্দোলন-সংগ্রাম, মিছিলে শ্লোগানে শ্লোগানে রাজপথ কাঁপিয়েছিলো তাদের অনেকের এখন নিরব ভূমিকা পালন করছে। দলের দু:সময়ে তৃনমূল নেতা কর্মীরা প্রতিপক্ষ দলের সন্ত্রাসীবাহীনির হামলা, মামলা ও নির্যাতনের স্বীকার হয়েছিলো। জামাত-বি এনপি সরকার ক্ষমতা আসার পর হাজার হাজার তৃণমূল নেতা কর্মীরা হয়েছিলো এলাকা ছাড়া। স্ত্রী, সন্তান,পরিবার-পরিজন, বসত ভিটা এবং সম্পর্ত্তি রেখে এলাকা থেকে পালিয়ে গিয়ে জীবন বাঁচিয়েছিলো অনেকে।
এমনকি বিএনপি সরকার আমলে পুরো ৫ বছর এলাকা ছেড়ে থাকতে হয়েছে তৃনমূল নেতাকর্মীদের। অনেকের বৃদ্ধা মা, বাবাকে রেখে এলাকা ত্যাগ করতে হয়েছে। কারো বাবা-মা মারা গেলে জানাজায় অংশগ্রহন তো দূরের কথা এলাকায় এসে দেখতে পর্যন্ত দেয় সেই পুলিশ ও বিএনপির নিজস্ব সন্ত্রাসীবাহিনীরা।
দলের জন্য নিবেদীত প্রাণ এই তৃনমূলের নেতা কর্মীরা আজও আওয়ামী লীগের আন্দোলন রাজনীতিতে বিশ্বাসী। শত জুলুম, অত্যাচার এবং নির্যাতন সহ্য করার পর তাদের দল ক্ষমতায় এসেছে। দল ক্ষমতায় এসেছে ১৫ বছর হতে চলেছে, আর মাত্র ১০ দিন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন, অনেকেই ঈগলের পক্ষে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে। আবার অনেকেই নিরব ভূমিকায় আছে।

তৃনমূল ত্যাগী নেতাকর্মীরা অভিযোগ করে বলেন, রাজনৈতিক হিংসাত্বক মনোভাবের কারণে তৃনমূলে থাকা ত্যাগী নেতাকর্মীরা আজ হারিয়ে যাচ্ছে। আন্দোলন সংগ্রামে যারা দলের কাজ করে নাই, বিভিন্ন কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে তদের দলে মূল্যায়ন বেশি হয়েছে। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও ত্যাগী নেতাকর্মীরা কোন মূল্যায়ন পাচ্ছে না হাইব্রিড নেতাদের কারণে।
অথচ দলের জন্য পূর্বে কোন ত্যাগ তিতিক্ষারের ইতিহাস নেই এসব সুবিধাবাদী নেতাকর্মীদের।
তৃনমূল নেতাকর্মীরা আরো বলেন, আওয়ামী লীগকে ভালবেসে তারা এই দলের জন্য শ্রম দিয়েছে। বারে বার আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসলেও তারা কোন মূল্যায়ন পায়নি। দল ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়েও তৃণমূল নেতাকর্মীদের মনে চরম হতাশা বিরাজ করছে।
তৃণমূল নেতাকর্মীরা সরকার বা দলের কাছে টাকা, পয়সা চায়না-নেতারা তাদেরকে একটু ভালবাসা ও তাদের খোঁজখবর নিবে এটাই তৃনমূল নেতাকর্মীদের একমাত্র চাওয়া-পাওয়া।
তাদের অভিযোগ, সুবিধাবাদী নেতাদের কারণে তারা আজ অবহেলিত এবং অবমূল্যায়িত। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলেছেন, বর্তমান রাজনীতিতে সুবিধাবাধী, মৌয়ালদের সমাগম ঘটেছে। অর্থের রাজনীতিতে বিশ্বাসী সুযোগ সন্ধ্যানীরা রাজনীতিতে প্রবেশ করেছে। আর ঐসব অর্থের বিশ্বাসী রাজনীতিবিদদের কাছে তাদের দল ও জনগন কেই নিরাপদ নয়। যতক্ষণ মধু আছে এরাও আছে, মধু নেই তো এরাও নেই, এরা যে কোন দলের জন্য অমঙ্গল বয়ে আনবে।
যেকোন রাজনৈতিক নেতাদের উচিৎ তৃনমূলের ত্যাগী নেতাকর্মীদের মুল্যাায়ন করা। একটি গাছের শেকর যেমন পুরো গাছের প্রাণ সঞ্চারে মূখ্য ভূমিকা পালন করে তেমনি দলের তনমূল পর্যায়ের ত্যাগী নেতাকর্মীরাও দলের জন্য অগ্রণী ভূমিকা পালন করে থাকে।

উপজেলার আওয়ামী লীগের এক শীর্ষস্থানীয় নেতা বলেন, ইদানিং কিছু অনুপ্রবেশকারী-সুবিধাবাদী রাজনীতিবিদ দলে ইনভেস্ট করছে সম্পদ কামানো নিশ্চিত করনে এতে বর্তমানে তৃণমূলে যারা আছে তারা এখন হাহাকার করছে। তারা মূলত মাঠপর্যায়ের কর্মী। সাধারণ মানুষের সাথে তারা ভাল মন্দেও ভাগিদার, সেই মানুষগুলো আজ দলীয় সকল ধরনের সুবিধা বঞ্চিত হচ্ছে।
তারা এখন দীর্ঘ নি:শ্বাস ছেড়ে আর বলে হায় কি করলাম আর কি হইল। কি পেলাম এত বছর দলের পিছনে শ্রম দিতে গিয়ে পরিবার পরিজনসহ অনেক কিছুই তো হারাম আর আজ দলে হাইব্রিড, সুবিধাবাদী, অনুপ্রবেশকারী নেতারাই মুল্যায়ন পাচ্ছে আমরা তৃনমূলে যারা ত্যাগী নেতাকর্মী আছি তারা শুধু অবহেলাই পাচ্ছি। আমাদেরকে করা হচ্ছে অবমুল্যায়ন।
এবারের উখিয়া-টেকনাফের সংসদীয় আসনের রাজনীতিতে অনেক নেতা কর্মীর ফেসবুক স্ট্যাটাস দেখলে তারা নিজের মনের খুব প্রকাশ করছে। কেউ ঈগলে পক্ষে স্ট্যাটাস দিচ্ছি। আবার কেউ নৌকার পক্ষে। কেউ কেউ বিন্নপথই হাঁটছে।

সর্বশেষ - Uncategorized

আপনার জন্য নির্বাচিত

ঠাকুরগাঁওয়ে নাইট কোচ ট্রাক মুখোমুখি সংঘর্ষ আহত ৮

উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে আরসার ৪ জন শীর্ষ সন্ত্রাসীকে অস্ত্র সহ আটক করেছে এপিবিএন পুলিশ

পেকুয়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী মুকুট ও ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থী আহসান উল্লাহর প্রার্থীতা প্রত্যাহার

মানবাধিকার সংস্থা-হিউম্যান এইড ইন্টারন্যাশনালের কক্সবাজার জেলা শাখার সভাপতি হলেন সাইদুল হক চৌধুরী

মহেশপুরে ভুল চিকিৎসায় ৫ মাসের শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ

অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার

উখিয়া আশ্রয় শিবিরে সন্ত্রাসীদের গুলিতে একজন নিহত।

গুড়দাহ মাধ্যমিক বিদ্যালয় স্কুলে ১ জানুয়ারি বই বিতরণ উৎসব

উপজেলা নবাগত ইউএনও সাথে পরিচিত ও মতবিনিময় সভা

কক্সবাজার রামু আসছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর নায়েবে আমির