শুক্রবার , ২৬ জানুয়ারি ২০২৪ | ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আর্জেন্টিনা
  5. ইউক্রেন
  6. ইরান
  7. খেলাধুলা
  8. চীন
  9. জবস
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দুর্ঘটনা
  13. দেশজুড়ে
  14. ধর্ম
  15. প্রবাস

প্রত্যন্ত অঞ্চলের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা দক্ষ হয়ে উঠছে ইংরেজি শিক্ষায়

প্রতিবেদক
admin
জানুয়ারি ২৬, ২০২৪ ৭:৪২ অপরাহ্ণ

মোঃ হাবিব ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার প্রতিদিধি:

বর্তমান প্রেক্ষাপটে শিক্ষার মান নিয়ে প্রশ্ন উঠলেও ঠাকুরগাঁওয়ের অঁজো পাড়াগায়ে গড়ে তোলা হয়েছে ব্যতিক্রমী একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এ প্রতিষ্ঠানে প্লে থেকে নবম শ্রেণী পর্যন্ত লেখাপড়ার পাশাপাশি ইংরেজী শিক্ষাসহ নানা বিষয়ে দক্ষ হয়ে উঠছে শিক্ষার্থীরা।

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সুকানপুখুরি ইউনিয়নের ফুটানি বাজার এলাকায় অবস্থিত স্কুলটি। গ্রামের ভেতর টিন শেড ঘেড়া প্রতিষ্ঠানটিই হচ্ছে মানুষ গড়ার একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ভাঙ্গাচোরা এই প্রতিষ্ঠানের ভেতরে প্রবেশ করলেই সকলের মনোযোগ আকর্ষণ করবে শিক্ষার্থীদের দেখে তারা কতটা সুশৃংখল।

সানলাইট এডুকেশনাল নামে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়মিত পাঠদানের পাশাপাশি ইংরেজীতে অনরগল কথা বলা, বাংলাদেশের প্রতিটি জেলার নাম এবং কত সালে প্রতিষ্ঠিত সবকিছুই দ্রুত সময়ে বলে দিচ্ছে এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়ুয়া প্লে থেকে নবম শ্রেণীর অধিকাংশ শিক্ষার্থীরা।

দক্ষ শিক্ষকদের দিয়ে পাঠদান, নিয়মিত রুটিন কাজে লাগানোসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে বন্ধু সুলভ আচরনে সু-শিক্ষায় শিক্ষিত করে তোলা হচ্ছে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের। আর গ্রামাঞ্চলে গড়ে উঠা এমন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অল্প খরচে ভর্তি করাতে পেরে খুশি অভিভাবকরাও। ২০১৯ সালে প্রতিষ্ঠিত স্কুলটিতে বর্তমানে দেড়শতাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে। আর এর বিপরীতে শিক্ষক রয়েছে এগারোজন।

স্কুলটির ব্যাপারে আমাদের কথা হয় অভিভাবকদের সাথে তারা বলেন, আমরাও পড়াশোনা করেছি তবে তাও আমার বাচ্চার মতো করে ইংরেজি বলতে পারবোনা। তারা এ স্কুলটিতে পড়ে ছোটথেকেই বেশ ভালো ইংরেজিতে দক্ষ হয়ে উটছে। এবং আমাদের গ্রামে এমন একটি স্কুল হওয়ায় আমরা অনেক খুশি। আমাদের চর বাচ্চাদের ইংরেজি শিখার জন্য ইংলিশ মিডিয়ামে ভর্তি করানোর প্রয়োজন নেই। গ্রামে এমন স্কুল গড়ে উঠলে বাচ্চারা ইংরেজিতে দক্ষ হয়ে উঠবে বলে আমরা মনে করি। এবং এসব স্কুলে খরচও কম।

স্কুলের পরিচালক সিরাজুল ইসলাম বলেন, আমার ছোটবেলা থেকেই ইচ্ছা ছিল আমি সেরা হব। কিন্তু তার পরে চিন্তা করলাম আমি যেহেতু গ্রামের ছেলে সকলে বলবে গ্রামের মধ্যে সেরা। তার পর আমি ভেবে দেখলাম আমি নিজে সেরা হওয়ার আগে গ্রামের সকলকেই সেরা করে তুলবো তখন আমি হবো সেরাদের মধ্যে সেরা। এই ভাবনা থেকে গ্রামের সকলকে সেরা বানানোর লক্ষে এ প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছি। তবে আর্থিক অনটনের কারণে বেশি দূর এগোতে পারছি না সরকারের সহযোগিতা পেলে আরও অনেক দূর এগোতে পারবো বলে আমি বিশ্বাস করি ।

ইউনিয়ন পর্যায়ে এমন স্কুল গড়ে উঠায় প্রশংসার কথা জানিয়ে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বেলায়েত হোসেন বলেন, এই প্রতিষ্ঠানটিকে আমাদের যেভাবে সহায়তা দেয়া প্রয়োজন, সরকারি অনুদান থেকে শুরু করে একাডেমিক অনুমোদন পাওয়ানোসহ অন্যান্য বিষয়ে আমরা তাদের পাশে থাকব এবং সকল ধরনের সহযোগিতা করে যাব। তাতে করে ওই এলাকার শিক্ষার্থীদের ইংরেজি আরও উন্নত হয়। এবং তারা যেন ইংরেজিতে দক্ষ হয়ে স্মার্ট নাগরিক হিসেবে গড়ে উঠতে পারে।

সর্বশেষ - Uncategorized

আপনার জন্য নির্বাচিত

রাখাইনের উত্তেজনাকর পরিস্থিতি নিয়ে সতর্ক বাংলাদেশ

গনহত্যা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুই সন্ত্রাসী গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ৫ জুলাই ৭, ২০২৩

খুরুশকুলের চিংড়ি ঘেরে মিলেছে জোড়া লাশ

সীমন্ত পরিদর্শনে বিজিবির মহাপরিচালক: মেজর জেনারেল এ কে এম নাজমুল হাসান

জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতায় মারুফ মডেল প্রাথমিক ও উচ্চ বিদ্যালয় সেরা

মহেশখালীতে দ্রব্যমূল্যের উধ্বর্গতি ঠেকাতে ইউএনও এসিল্যান্ডের অভিযান

আলোচিত পুলিশ কর্মকর্তা হারুন সাময়িকভাবে বরখাস্ত

মানবেতর জীবনযাপন মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মতিনের

মহেশখালীতে পুলিশের অভিযানে অস্ত্রসহ সন্ত্রাসী হেলাল গ্রেফতার