শনিবার , ২৩ মার্চ ২০২৪ | ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আর্জেন্টিনা
  5. ইউক্রেন
  6. ইরান
  7. খেলাধুলা
  8. চীন
  9. জবস
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দুর্ঘটনা
  13. দেশজুড়ে
  14. ধর্ম
  15. প্রবাস

বন বিভাগের অভিযানে অবৈধভাবে কাঠ পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত পোষা হাতি আটক কাঠ জব্দ

প্রতিবেদক
admin
মার্চ ২৩, ২০২৪ ৬:৩১ অপরাহ্ণ

মো.ইসমাইলুল করিম, নিজস্ব প্রতিবেদক:

পার্বত্য জেলা বান্দরবানের লামা উপজেলার দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে কাঠ পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত একটি পোষা হাতি আটক করেছে বন বিভাগ। শুধু তায় নয় এ সময় আটক হাতির মাহুত সহ বিভিন্ন প্রজাতির ৬০০ ঘনফুট কাঠও জব্দ করা হয়। শনিবার (২৩ মার্চ) উপজেলার সরই ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি লেমুপালং এলাকার পালং খাল ও শীল ঝিরির মোহনা থেকে এসব কাঠ জব্দের পাশাপাশি হাতি আটক করে। আটক হাতিটি সিলেট জেলার মোমিন কোম্পানীর বলে জানান বন কর্মকর্তারা। বিভিন্ন সুত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার সরই ও গজালিয়া এ’দুই ইউনিয়নের মঝামাঝি লেলুপালং এলাকার পাহাড়ে শ্রমিক লাগিয়ে বড় বড় আকারের গাছ কেটে হাতি দিয়ে পরিবহনের পর লোকালয়ে নিয়ে অবৈধভাবে দেশের বিভিন্ন স্থানে পাচার করে আসছেন মোরশেদ আলম চৌধুরী ও তার ম্যানেজার মো. রফিক নামের দুই ব্যক্তি। স্থানীয়দের এমন অভিযোগের ভিত্তিতে লামা বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. আরিফুল হক বেলালের নির্দেশনায় লামা সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা একেএম আতা এলাহি ও ডলুছড়ি রেঞ্জ কর্মকর্তা একেএম রেজাউল ইসলামের নেতৃত্বে সঙ্গীয় সদস্যরা শনিবার সকাল থেকে দুপুরে পর্যন্ত লেমুপালং এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় অবৈধভাবে কাঠ পরিবহন কাজে ব্যবহৃত মাহুত সহ একটি হাতি আটক ও গর্জন, শিউলী, লালীসহ বিভিন্ন প্রজাতির কাঠ জব্দ করেন বন বিভাগ কর্মকর্তারা।এ বিষয়ে ডলুছড়ি রেঞ্জ কর্মকর্তা একেএম রেজাউল ইসলাম বলেন, অবৈধভাবে হাতি দিয়ে গাছ পরিবহরের খবর পেয়ে সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত একটানা বন বিভাগের দুইটি টিম লেমুপালং মৌজায় অভিযান চালিয়ে মাহুত সহ হাতি ও কাঠ জব্দ করেছি। ওই এলাকায় কাঠ পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত আর কোন পোষা হাতির সন্ধান পাওয়া যায়নি। আটক হাতি দিনগত রাতেই কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলাস্থ বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে ও আটক হাতির মাহুতকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।অভিযানে কাঠ জব্দ সহ মাহুত ও হাতি আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে লামা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আরিফুল হক বেলাল জানান, অবৈধভাবে কাঠ পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত পোষা হাতির মালিকের বিরুদ্ধে বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইন, ২০১২ এর অধীনে ও কাঠ পাচার কাজে জড়িতদের বিরুদ্ধে ফরেস্ট ট্রানজিট রুল্স ১৯৭৩ এর অধীনে মামলার প্রস্তুতি চলছে। অবৈধভাবে কাঠ পাচার রোধে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।

সর্বশেষ - Uncategorized

আপনার জন্য নির্বাচিত

৫ আগস্ট ঢাকায় বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ

৫০০০ হাজার ইয়াবাসহ দুই মাদক কারবারি গ্রেফতার

জাতীয় শ্রমিক লীগের ৭ জন সদস্যের আংশিক (ওয়ার্ড) কমিটি অনুমোদন

উখিয়া সীমান্তে ১ কেজি ৫৮ গ্রাম ক্রিস্টাল আইস ও ১৮ ক্যান বিয়ার জব্দ করে ৩৪ বিজিবি

মিরসরাইয়ে নৌকার সমর্থনে মিছিল ও পথসভা

পাহাড় ধসে বেশি ঝুঁকিতে উখিয়া উপজেলা

ঠাকুরগাঁও একজনকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে

কক্সবাজারে ৬ নাম্বার ঘাটে ফিশিং ট্রলারে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ!

ফাইতংয়ে মাহা ‘সাংগ্রাইং’ পোয়েঃ ১৩৮৬ উদযাপন উপলক্ষে জলকেলি উৎসব সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

নাইক্ষ্যংছড়িতে পাহাড় কাটার দায়ে ইউপি সদস্যের কারাদণ্ড